Tuesday, 29 November 2011

মদপানে মৃত ছাত্রলীগ নেতার প্রতিকৃতি স্থাপনের প্রতিবাদ কুয়েট শিক্ষকদের তিন দিন ক্লাস বর্জন

সংগ্রাম ডেস্ক : নগরীর ফুলবাড়ীগেট এলাকায় অবস্থিত খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগ কুয়েট শাখার সভাপতির প্রতিকৃতি স্থাপন করার প্রতিবাদে কুয়েট শিক্ষকরা তিন দিন ক্লাস বর্জন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।
গতকাল সোমবার শিক্ষক সমিতি নতুন কর্মসূচি ঘোষণায় এ সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়। নতুন কর্মসূচিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক আজ মঙ্গলবার থেকে তিনদিন এ কর্মসূচি পালন করবেন।
কুয়েট শিক্ষক সমিতির ভাইস প্রেসিডেন্ট প্রফেসর ড. মো. মাসুদ গতকাল সোমবার দুপুর ১২টায় জানান, মদপানে মারা যাওয়া শিক্ষার্থীর প্রতিকৃতি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে স্থাপনকে আমরা নিন্দা জানাই। বিধি বর্হিভূতভাবে স্থাপিত এ প্রতিকৃতি অপসারণের জন্য আমরা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে গত রোববার পর্যন্ত সময় বেঁধে দিয়েছিলাম। এ নিয়ে আমরা কর্মসূচিও পালন করেছি। কর্মসূচি চলাকালেই প্রতিকৃতিটি উন্মোচণ করা হয়েছে। কিন্তু কর্তৃপক্ষ সে সময়ের মধ্যে প্রতিকৃতিটি অপসারণ করেননি। তাই নতুন কর্মসূচি দিতে বাধ্য হয়েছি। নতুন কর্মসূচিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক মঙ্গলবার থেকে তিনদিন শ্রেণীকক্ষে কোনো রকম পাঠদান করবেন না।
গত বছরের ২২ নবেম্বর কুষ্টিয়া জেলার ভেড়ামারায় এক বিয়ের অনুষ্ঠানে গিয়ে অতিরিক্ত মদপান করে এ কে এম আহসান উল্লাহ ভূঁইয়া মেহেদী মারা যান। তিনি কুয়েটের পুরকৌশল বিভাগের ছাত্র ও কুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন। তারই স্মৃতি রক্ষার জন্য সম্পূর্ণ বেআইনী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের নীতিমালার বাইরে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বিশালাকৃতির এক প্রতিকৃতি স্থাপন করা হয়। যা গত বুধবার খুলনা সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক আনুষ্ঠানিক উন্মোচণ করেন।
মদপান করে যে শিক্ষার্থী মারা গেছে তার স্মৃতি রক্ষার নামে ক্যাম্পাসে চলতি বছর অক্টোবর মাসের শেষদিকে ক্যাম্পাসের খান জাহান আলী হলের সামনে তার একটি স্মৃতিফলক স্থাপন করা হয়। ফলকটি স্থাপনের পর থেকে কুয়েটের শিক্ষকরা প্রতিবাদমুখর হয়ে ওঠেন।

No comments:

Post a comment